আউয়াবীনের নামাজ পড়ার নিয়ম ও ফজিলত

 

আউয়াবীনের নামায

নুরুল ইজা ও বাহরে রায়েক কিতাবে লেখা আছে মাগরিবের ফরজ ও সুন্নাতের পর ২ রাকাত করে মোট ৬ রাকাত নামায তিন সালামে পড়তে হয় ইহাই হলো আউয়াবীনের নামায

হ عن أبي هريرة قال . قال رسول الله صلى الله عليه و سلم من صلى بعد المغرب ست ركعات لم يتكلم فيما بينهن بسوء عدلن له بعبادة ثنتي عشرة سنة

হযরত আবু হুরায়রা ( রা . ) থেকে বর্ণিত । রাসূল ( সা . ) বলেন , যে ব্যক্তি মাগরিবের নামাযের পর ৬ রাকাত নামায ( আউয়াবীনের নামায ) পড়বে । যার মধ্যে সে কোন রকমের দুনিয়াবী কথাবার্তা বলবে না . তাহলে এ নামায দ্বারা তার জন্য ১২ বছর নফল ইবাদতের সমান মর্যাদা লাভ হবে । ( তিরমিযী শরীফ ) মারাকিল ফালাহ কিতাবে আছে , যে ব্যক্তি মাগরিবের সুন্নতের পর ২০ রাকাত নফল নামায পড়বে তার জন্য জান্নাতে খাছ কামরা বা স্বতন্ত্র ঘর তৈরি করা হবে ।