"মানবজীবন ও ইসলাম "

 


 


মানবজীবন ও ইসলাম

 

অথবা , ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ জীবনব্যবস্থা শান্তির ধর্ম ইসলাম ইসলাম মানবতার ধর্ম ইসলাম ও মানবকল্যাণ মানবতার মুক্তিতে ইসলাম। 

আল্লাহর বাণী , “ আল্লাহর কাছে একমাত্র গ্রহণযোগ্য জীবনব্যবস্থা ইসলাম । " আর বিবেকবান মানুষের অকপট স্বীকারোক্তি " Islam is the Complete Code of life . " অর্থাৎ , ইসলাম পূর্ণাঙ্গ জীবনবিধান । ইসলামের আগমন হয়েছে মানবকল্যাণে এবং মানবতার মুক্তির জন্য । শান্তি প্রতিষ্ঠায় ও মানবকল্যাণে ইসলামের গুরুত্ব সবচেয়ে বেশি । 

পূর্ণাঙ্গ জীবনব্যবস্থা : 

            মানবজীবনের সকল সমস্যার সুন্দর ও কল্যাণকর সমাধান ইসলামে রয়েছে । এক কথায় বলা যায় , মানুষের ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে সামাজিক , অর্থনৈতিক , সাংস্কৃতিক , রাজনৈতিক ও ধর্মীয় তথা সকল দিকের সকল সমস্যার বিজ্ঞানসম্মত সমাধান একমাত্র ইসলামেই বিদ্যমান । 

মানবতার কল্যাণে ইসলাম : 

        একমাত্র ইসলামই মানবতার কল্যাণে যুগান্তকারী ভূমিকা পালন করছে । ইসলামের সুশীতল ছায়াতলে এসে নির্যাতিত , নিপীড়িত মানুষ পেয়েছে মুক্তির দিশা , বিপর্যস্ত , অবহেলিত মানুষ পেয়েছে শান্তির ঠিকানা । তাই মানবতার কল্যাণে ইসলামের অবদান সবচেয়ে বেশি । 

বিশ্বভ্রাতৃত্ব প্রতিষ্ঠায় ইসলাম : 

          আল্লাহর বাণী " মুমিনগণ পরস্পর ভাই ভাই । " ধনী - গরিব , রাজা - প্রজা , উঁচু - নিচুর ভেদাভেদ নির্মূল করে ইসলামই সর্বপ্রথম মানুষের মাঝে মানবতাবোধের ধারণা জন্ম দেয় । নারী অধিকার সংরক্ষণে ইসলাম : জাহেলিয়াতের যুগে নারীদের পণ্যের মতো বিক্রি করা হতো , কন্যা - সন্তানকে জীবন্ত কবর দেওয়া হতো । সে সমাজে মহানবী ( স ) -ই সর্বপ্রথম নারী সম্প্রদায়কে যথাযথ সামাজিক মর্যাদা প্রদান করে নারীর প্রকৃত অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন । 

মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় ইসলাম : 

         ইসলাম সকলের মৌলিক মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার নিশ্চয়তা দিয়েছে । মহানবী ( স ) -এর বিদায় হজ্জের ভাষণই এর উজ্জ্বল প্রমাণ । অথচ বর্তমান বিশ্বে অহরহ মানবাধিকার ভূলুণ্ঠিত হচ্ছে । যেমন- বসনিয়ায় নির্বিচারে গণহত্যা , স্বাধীনতাকামী কাশ্মীরিদের ওপর নির্যাতন , ফিলিস্তিন স্বাধীন রাষ্ট্র হয়েও ইসরাইলের হাতে পরাধীন , আলজেরিয়ার জনতার রায় ইসলামপন্থীদের পক্ষে হলেও ইসলামি শাসনব্যবস্থার স্বীকৃতি দেওয়া হয় নি । ইসলামের মানবাধিকার আইন না মানার কারণেই বর্তমানে এভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে । শোষণমুক্ত 

অর্থনীতি প্রতিষ্ঠায় ইসলাম : 

          ইসলাম ইসলামভিত্তিক অর্থব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ধনী - দরিদ্রের মাঝে সহাবস্থানের পরিবেশ সৃষ্টি ছে । তাই Oxford University- র দু'জন অধ্যাপক বলেছেন- " The muslim economic system seen to have a great merit the western world should study it perhaps to adopt it in a whole in apart . " .

ধর্মীয় স্বাধীনতা : 

         ইসলাম সকল ধর্মের অনুসারীদের ধর্মীয় স্বাধীনতা প্রদান করেছে । মহানবি ( স ) -এর মদিনা সনদ - এর প্রকৃত উদাহরণ । এ সনদে সকল ধর্মের অনুসারীদের ধর্মীয় স্বাধীনতা ও পূর্ণ অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে । বিধর্মীদের জোর করে ইসলামে প্রবেশ করানো যাবে না এবং তাদের ধর্মীয় ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করা যাবে না । এ ব্যাপারে পবিত্র কুরআনে ইরশাদ হয়েছে— “ ধর্মীয় ব্যাপারে কোনো বাড়াবাড়ি নেই । ” 

প্রতিবেশীর অধিকার :

          প্রতিবেশীর মান - সম্মান , ধনসম্পদ রক্ষা করা , তার বিপদাপদে এগিয়ে আসা , অসুস্থ হলে সেবা করা , উপস্থিত অনুপস্থিতিতে তার কল্যাণ কামনা করা ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ বিধান । প্রতিবেশীর এসব অধিকার রক্ষার মাধ্যমেই সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয় । 

পরকালীন মুক্তির নিশ্চয়তা : 

         প্রত্যেক মুমিনের সবচেয়ে বড় চাওয়া ও পাওয়ার বিষয় হল পরকালীন মুক্তি । আর এক্ষেত্রে একমাত্র দিকনির্দেশনা হলো ইসলাম । ইসলাম ছাড়া পরকালীন মুক্তির কোনো পথ নেই । ইসলামের পূর্ণাঙ্গ অনুসারীদের জন্য রয়েছে পরকালে মুক্তি ও চিরশান্তির নীড় জান্নাতের সুব্যবস্থা । 

উপসংহার : 

         অতএব , প্রমাণিত হলো যে , ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ , সর্বজনীন , শান্তি ও প্রগতির ধর্ম । যে বা যারা ইসলামের বিধানাবলি মেনে চলবে তাদের জীবনে নেমে আসবে । শান্তির অমিয়ধারা , প্রতিষ্ঠিত হবে মানবকল্যাণ ।